কম দামে ভালো ফোন খুঁজছেন? বর্তমান স্মার্টফোনের বাজার খুবই প্রতিযোগিতাপূর্ণ। বাজার ধরে রাখতে কোম্পানিগুলোও প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ফিচারসমৃদ্ধ ফোন নিয়ে আসছে। তাই, ১২ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২১ সালে বাংলাদেশের বাজারে অবশ্যই পাওয়া সম্ভব।

তবে ক্রেতারা অনেকসময় ঠিক বুঝে উঠতে পারেন না যে কোন ফোনটি তার জন্য ভালো হবে। বাজার ঘুরে যাচাই করতে পারলে কম দামে ভালো মোবাইল অবশ্যই পেয়ে যাবেন।

আপনার স্মার্টফোনের জন্য বাজেট যদি হয় দশ থেকে ১২ হাজার টাকা, তাহলে আজকের এই লেখাটি আপনার জন্যই।

কম দামে ভালো ফোন ২০২১

কেউ ভাল ক্যামেরা চায়, তো কারো পারফরম্যান্স দরকার, কেউ বড় ডিসপ্লে চায়, তো অনেকের দীর্ঘ সময় ব্যকআপ দিবে এমন ব্যাটারি সম্বলিত ফোন চায়।

সকলের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই বাজারে থাকা কম দামে ভালো ফোনগুলো লিস্ট করা হয়েছে যেগুলো ৮ হাজার থেকে ১২০০০ টাকার মধ্যেই পেয়ে যাবেন।

১০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২১

আমাদের বাছাইকৃত ২০ টি ফোনের সেরা ১০টি কম দামে ভালো ফোন যেগুলো ১০ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যেই পাওয়া যাবে সেগুলো একনজরে দেখে নেওয়া যাক:

  1. ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে
  2. টেকনো স্পার্ক ৬ গো
  3. ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো
  4. টেকনো স্পার্ক ৬ এয়ার
  5. শাওমি রেডমি ৯এ
  6. রিয়েলমি সি২০ এ
  7. আইটেল ভিশন ২ প্লাস
  8. সিম্ফনি জেড৪০
  9. ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫
  10. স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২

ভাবছেন এতগুলো ফোনের মধ্য থেকে কোনটি কিনবেন? কোন ফোনটি আপনার চাহিদার সাথে মেলে? এই সিদ্ধান্ত নিতে এবং ফোনগুলোর সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের সম্পূর্ণ লেখাটি পড়ুন।

১. ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে

9000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইলইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ফোনটি ১০ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে সেরা ফোনগুলোর একটি। এতে ব্যবহৃত মিডিয়াটেকের জি৩৫ প্রসেসরটি গেমিং কে কেন্দ্র করেই তৈরি করা হয়েছে। আর এর ব্যাটারিও বিশাল।

তাই যারা টুকটাক গেম খেলতে চান এবং ডেইলি ইউজেসে মোটামুটি ভাল পারফরম্যান্স ও ব্যাটারি ব্যাকআপ চান তাদের জন্য এই ডিভাইসটি ভালো অপশন হবে।

ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৮২ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬৪০।
  • ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ফেইস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৭১.৮ * ৭৮ * ৮.৯ মি.মি।
  • ওজনঃ ২০৭ গ্রাম।

এই ফোনটির ৩/৩২ জিবি ভ্যারিয়্যান্টটি পাওয়া যাচ্ছে ৯৯৯০ টাকায়।

২. টেকনো স্পার্ক ৬ গো

১২০০০ টাকার মধ্যে ভালো মোবাইলভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ এবং নিত্যদিনের ব্যবহারে চলনসই পারফরম্যান্স চাইলে এই ফোনটি আপনার জন্য বেশ ভালো হবে।

বর্তমানে ফোনটির ৩/৬৪ জিবি ভ্যারিয়্যান্টের বাজার মূল্য ৯৯৯০ টাকা।

টেকনো স্পার্ক ৬ গো ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২০।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬০০।
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৬৫.৬ * ৭৬.৩ * ৯.১ মিমি।

৩. ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো

কম দামে ভালো ওয়ালটন মোবাইলখুব সুন্দর ডিজাইনের ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো ফোনটি সবদিক মিলিয়ে একটি অল রাউন্ড ফোন। যারা ছোট সাইজের ফোন পছন্দ করেন এই ফোনটি তাদের জন্য।

ফোনটির মেইন ক্যামেরাটি সনির সেন্সর। ছবি তোলার ক্ষেত্রে সনির সেন্সরের সুনাম সবারই জানা। আর সেকেন্ডারি ক্যামেরাটি আল্ট্রাওয়াইড। এই বাজেটে একমাত্র এই ফোনটিই আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা অফার করেছে। তাই কম দামে যারা ওয়ালটন মোবাইল খুঁজছেন, দ্বিতীয় চিন্তা না করেই এই ফোনটি নিয়ে নিতে পারেন

ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.১ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৫৬০।
  • ব্যাটারিঃ ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩+৫+০.৩ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ অ্যান্ড্রয়েড ১০।

ফোনটির ৩/৬৪ জিবি ভ্যারিয়্যান্টের বর্তমান বাজারমূল্য ৯৭৯৯ টাকা।

৪. টেকনো স্পার্ক ৬ এয়ার

কম দামে ভালো ফোন 2021বাংলাদেশআপনার যদি বেশি ব্যাটারি ব্যাকআপ এবং বড় স্ক্রিন দরকার হয় তাহলে এই ফোনটি আপনার জন্যই। ফোনটির প্রসেসর খুব একটা শক্তিশালী না কিন্তু নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজগুলো সহজেই করে নিতে পারবেন।

গান শোনা বা ভিডিও দেখার জন্য বড় ডিসপ্লের তুলনা হয় না। এজন্য মিডিয়া উপভোগের জন্য এটি পারফেক্ট ফোন।

টেকনো স্পার্ক ৬ এয়ার ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসরঃ কোয়াড কোর ১.৮ গিগাহার্জ।
  • ডিসপ্লেঃ ৭ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬৪০।
  • ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ফ্ল্যাশযুক্ত।
  • সিকিউরিটিঃ ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৭৪.৭ * ৭৯.৪ * ৯.৩ মিমি।

ফোনটির ৩/৬৪ জিবি ভ্যারিয়্যান্টটির বর্তমান মূল্য ৯৯৯০ টাকা।

৫. শাওমি রেডমি ৯এ

শাওমি কম দামে ভালো ফোন ২০২১শাওমি ফোনগুলো বর্তমানে ক্রেতাদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে। বিভিন্ন প্রাইস রেঞ্জে তারা ভ্যালু ফর মানি ডিভাইস অফার করে থাকে। রেডমি ৯এ ফোনটি দশ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে শাওমির একমাত্র ফোন। ফোনটি ১০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

শাওমি রেডমি ৯এ ফোনটির ফিচারসমূহঃ

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি২৫।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৩ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬০০।
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল সিঙ্গেল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফেইস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ মিইউআই ১২ অন অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৬৪.৯ * ৭৭.১ * ৯ মিমি।
  • ওজনঃ ১৯৬ গ্রাম।

ফোনটির ২/৩২ জিবি ভ্যারিয়্যান্টের দাম বর্তমানে বাংলাদেশে ৯৯৯৯ টাকা।

৬. রিয়েলমি সি২০এ

কম দামে ভালো ক্যামেরা মোবাইল ২০২০ভ্যালু ফর মানি ডিভাইস অফার করতে শাওমির সাথে পাল্লা দিয়ে এগোচ্ছে রিয়েলমি। দশ হাজার টাকার মধ্যে রিয়েলমির এই একটিমাত্র ফোনই বর্তমানে বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে।

রেডমি ৯এ’র প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ধরা যায় এই ফোনটিকে। রেডমি ৯এ’র থেকে এতে আছে কিছুটা বেশি শক্তিশালী প্রসেসর, আবার ক্যামেরার দিক থেকে কিছুটা এগিয়ে রেডমি ৯এ।

রিয়েলমি সি২০এ ফোনটির ফিচারসমূহঃ

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬০০।
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল সিঙ্গেল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফেইস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ রিয়েলমি ইউআই অন অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৭২.২ * ৭৬.৪ * ৮.৯ মিমি।
  • ওজনঃ ১৯০ গ্রাম।

রিয়েলমি সি২০এ ফোনটির ২/৩২ জিবির ভ্যারিয়্যান্টটি বর্তমানে বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে ৮৯৯০ টাকায়।

৭. আইটেল ভিশন ২ প্লাস

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশখুবই সুন্দর দেখতে আইটেল ভিশন ২ প্লাস ফোনটি দশ হাজার টাকা বাজেটে অন্যতম সেরা ফোন। এই ফোনটি দেখতে খুবই স্টাইলিশ। ডিসপ্লে বিশাল হওয়ায় মিডিয়া উপভোগ করার জন্য খুবই উপযোগী একটি ফোন এটি। যারা ইউটিউব দেখবেন, মুভি দেখবেন তাদের জন্য এই ফোনটি একটি যথাযথ চয়েজ হতে পারে।

আইটেল ভিশন ২ প্লাস ফোনটির ফিচারসমূহঃ

  • প্রসেসরঃ অক্টা কোর ১.৬ গিগাহার্জ।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৮ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬৪০।
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ফেইস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ অ্যান্ড্রয়েড ১০।

ফোনটির ৩/৬৪ জিবি ভ্যারিয়্যান্টটির বর্তমান বাজার মূল্য ৯৯৯০ টাকা।

৮. সিম্ফনি জেড৪০

symphony কম দামে ভালো মোবাইলsymphony কম দামে ভালো মোবাইল যারা খুঁজছেন, তাদের জন্য দশ হাজার টাকা বাজেটে সেরা ফোনগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে সিম্ফনি জেড৪০। এই ফোনটিও দেখতে বেশ গর্জিয়াস।

দশ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে এই ফোনটিই একমাত্র পাঞ্চহোল ক্যামেরা অফার করে। বর্তমানে পাঞ্চহোল ক্যামেরা বেশ জনপ্রিয় হচ্ছে, কেননা এটি ফোনকে একটা আধুনিক লুক দেয়। সবদিক মিলিয়ে এই ফোনটি একটি ওভারঅল ব্যালেন্সড ফোন।

সিম্ফনি জেড৪০ ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসরঃ অক্টা-কোর ২.৩ গিগাহার্জ।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬০০।
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩+২+৫ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফেইস আনলক ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ মিইউআই ১২ অন অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৬৫ * ৭৬.৬ * ৮.৯ মিমি।
  • ওজনঃ ১৯৩.৫ গ্রাম।

ফোনটির ৩/৩২ জিবি ভ্যারিয়্যান্টের বর্তমান মূল্য ৯৪৯০ টাকা।

৯. ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫

কম দামে ভালো ফোন 2021 বাংলাদেশএই ফোনটিও বেশ কমপ্যাক্ট সাইজের। এর মেইন ক্যামেরা সেন্সর সনির। সুতরাং ছবির কোয়ালিটি তুলনামূলকভাবে ভাল হবে এমনটা আশা করাই যায়। যারা ছোট সাইজের ফোন পছন্দ করেন কিংবা একটা লম্বা সময় ধরে ফোন ব্যবহার করতে হয় তাদের জন্য এই ফোনটি সুবিধাজনক হতে পারে।

ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২০।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.১ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৫৬০।
  • ব্যাটারিঃ ৪৯০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ ফেইস আনলক ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৫৫.২*৭২.৮*৯.৪ মিমি।
  • ওজনঃ ১৮২ গ্রাম।

ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়্যান্টের বর্তমান মূল্য ৯৪৯০ টাকা।

১০. স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২

কম দামে ভালো মোবাইল 2021কম দামে ভালো স্যামসাং ফোন খুঁজে থাকলে এই বাজেটে স্যামসাংয়ের একমাত্র ফোন এটিই। ফোনটি ডেইলি ইউজেসে মোটামুটি পারফরম্যান্স দিলেও কিছু ফিচারের ঘাটতি আছে, যেমন এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা ফেস আনলক কোনোটিই নেই। তবে যারা স্যামসাং ব্র্যান্ডের ফোনই নিতে চান তাদের জন্য এই ফোনটিই একমাত্র অপশন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২ ফোনটির ফিচারসমূহঃ

  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক এমটি৬৭৩৯ডব্লিউ।
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোল্যুশনঃ ৭২০*১৬০০।
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • রিয়ার ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা।
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটিঃ নেই।
  • অপারেটিং সিস্টেমঃ ওয়ান ইউআই অন অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশনঃ ১৬৪ * ৭৫.৯ * ৯.১ মিমি।
    ওজনঃ ২০৬ গ্রাম।

ফোনটির ২/৩২ জিবি ভ্যারিয়্যান্টটি পাওয়া যাচ্ছে ৯৫৯৯ টাকায়।

বাংলাদেশে স্মার্টফোনের চাহিদা দিনদিন বাড়ছেই। চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে প্রতিযোগিতাও বাড়ছে। দশ হাজার টাকার মধ্যে সেরা ফোনগুলোর মধ্য থেকে পছন্দ ও প্রয়োজন অনুযায়ী বেছে নিন আপনারটি।

১২০০০ টাকার মধ্যে সেরা ফোন ২০২১

কম দামে স্মার্টফোন কেনার গ্রাহক সংখ্যা অনেক, তাই বর্তমানে বড় বড় প্রায় সব ব্যান্ডগুলোই কম দামে ভালো ফোন বাজারে নিয়ে আসছে। এই লো বাজেট ফোনের সংখ্যা ফ্লাগশিপ স্মার্টফোনের তুলনায় অনেক বেশি, তাই সঠিক ফোন বাছাইয়ের ক্ষেত্রে কাস্টমাররা বেস ভোগান্তিতেই পরেন।

১২০০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে এমন কিছু সেরা ফোন বাছাই করার ক্ষেত্রে যেসব বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি তা হলো গ্রাহকের মিনিয়াম রিকোয়ারমেন্ট যেমন,

  • ফোনগুলাতে থাকতে হবে মিনিমাম ৬ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে
  • র্যাম ৩ জিবি
  • ROM ৩২ জিবি
  • প্রসেসর ২.৬ গিগাহার্জ এর অক্টাকোর প্রসেসর
  • আর ৫০০০-৪০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি

চলুন কম দামের মধ্যে পাওয়া এমন আরো ১০টি ভালো ফোন সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

১. Vivo Y12s

12000 টাকার মধ্যে ভালো ফোন 2021ডিসপ্লে: ভিভো Y12s ফোনটিতে রয়েছে আইপিএস এলসিডি ৬.৫১ ইঞ্চির ৭২০×১৬০০ পিক্সেল ডিসপ্লে যার ৮১.৬% স্ক্রিন, বাকি অংশ বডি।

হার্ডওয়্যার: এর চিপসেট মিডিয়াটেক এমটি৬৭৬৫ হেলিও পি৩৫ যা অক্টাকোর প্রসেসর। চারটি ২.৩৫ গিগাহার্টজ স্পিডের এবং বাকি চারটি ১.৮ গিগাহার্টজ স্পিডের। ফোনটির এন্ড্রোয়েড ভার্সন ১০।

ক্যামেরা: রয়েছে ডুয়েল ক্যামেরা, একটি ১৩ মেগাপিক্সেল যার এপার্চার ২.২, আর একটি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল যার এপার্চার ২.৪। সেলফি ক্যামেরায় রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল। ফ্রন্ট আর রেয়ার দুই ক্যামেরা দিয়েই রয়েছে ১০৮০ পি / ৩০ এফপিএসে ভিডিও করার সুবিধা।

স্টোরেজ: ফোনটির মেমোরি হিসেবে রয়েছে তিনটি ভ্যারিয়েন্ট যথাক্রমে ৩/৩২জিবি, ৪/৩২জিবি, ৪/১২৮ জিবি।

ব্যাটারী: ভিভোর এই মোবাইলে ৫০০০ অ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, তবে ফোনটিতে টাইপ ২ পোর্ট ব্যবহার করা হয়েছে।

অসুবিধা:

  • ইউ এস বি টাইপ সি নেই
  • ক্যামেরা পারফোরমেন্স
  • ফাস্ট চার্জিং নেই

মূল্য: ১১,৯৯০ টাকা (3/32 GB)

২. Techno Spark 7

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রাইসডিসপ্লে: টেকনো স্পার্ক ৭ ফোনটিতে রয়েছে আইপিএস এলসিডি ৬.৫” ইঞ্চির ৭২০×১৬০০ পিক্সেল ২০:৯ রেসিও ডিসপ্লে।

হার্ডওয়্যার: টেকনো স্পার্ক ফোনে চিপসেট হিসেবে রয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও এ২৫ (১২ নেনোমিটার), যা অক্টাকোর প্রসেসর। এর চারটি কোর ১.৮ গিগাহার্জ এবং চারটি কোর ১.৫ গিগাহার্জ।

ক্যামেরা: ডুয়েল ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল সেন্সর ক্যামেরা। সেলফির জন্য রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। উভয় ক্যামেরা দিয়ে ১০৮০পি ৩০ এফপিএসে ভিডিও শুট করা সম্ভব।

ব্যাটারী: 12000 টাকার মধ্যে ভালো ফোন 2021 এর বাজারে থাকা ফোনটিতে ৬০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যার কারণে হেভি ইউজাররা বারবার চার্জ দেওয়ার ঝামেলা থেকে মুক্তি পাবেন।

স্টোরেজ: ফোনটির মেমোরি ক্যাপাসিটির দিকে থেকে দুটি ভ্যারিয়েন্ট এভেইলেবেল, ২/৩২ জিবি ও ৩/৬৪ জিবি।

অসুবিধা:

  • চিপ বডি ম্যাটেরিয়াল
  • পারফোমেন্স

মূল্য: 11,990 টাকা (4/64 GB)

৩. Walton Primo RX8 Mini

১২০০০ টাকার মধ্যে ওয়ালটন মোবাইলডিসপ্লে: ওয়াল্টন প্রিমো আরএক্স৮ মিনি ফোনটি কম দামে ভালো ফোন এর লিস্টের মাঝে অন্যতম সেরা একটি স্মার্টফোন। ৬.৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ আইপিএস স্ক্রিনের সাথে রয়েছে ফুল ভিউ ওয়াটার ড্রপ নচ ডিজাইন।

ক্যামেরা: রেয়ার ক্যামেরাটি পিডিএএফ ডেপথ ১/২.৮৬ সেন্সর বিশিষ্ট্য ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং ক্যাপাবিলিটির ট্রিপল (১২+৮+৫ মেগাপিক্সেল) ক্যামেরা। সেল্ফি ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল।

হার্ডওয়্যার: এটি ১৪ ন্যানোমিটারের কোয়ালকম স্নাপড্রাগন ৬৬০ চিপ্সেট দ্বারা পরিচালিত। ওয়াল্টন প্রিমো আরএক্স৮ মিনি ফোনটিতে রয়েছে ৪ জিবি র্যাম, ২.২ গিগাহার্জের অক্টাকোর সিপিইউ এবং জিপিইউ ৫১২।

স্টোরেজ: ফোনটির সাথে আছে ৬৪ জিবি রম যা অতিরিক্ত মেমোরি কার্ডের ঝামেলা থেকে মুক্তি দিবে, তবে চাইলে আলাদা মেমোরি কার্ডও ব্যবহার করতে পারবেন।

নিরাপত্তা: সিকিউরিটির জন্য ব্যাক মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সরও রয়েছে ফোনটিতে।

ব্যাটারী: ফোনটির সাথে ৩৬০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, যা ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং নিতে পারে, স্টক চার্জার হিসেবে ১০ ওয়াটের চার্জারও দেওয়া থাকে।

অসুবিধা: ব্যাটারি ক্যাপাসিটি তুলনামূলক কম

মূল্য: ১২,৯৯৯ টাকা।

৪. Xaomi Redmi 9 Dual Camera

১২০০০ টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইলডিসপ্লে: শাওমি রেডমি 9 ডুয়াল ক্যামেরার ফোনটি 6.53 ইঞ্চি এইচডি+ আইপিএস এলসিডি স্ক্রিন সম্বলিত। এটিতে ফুল-ভিউ ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন রয়েছে।

ক্যামেরা: শাওমির এই ফোনটিতে এলইডি ফ্ল্যাশ, ডেপথ সেন্সর, এইচডিআর, ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং অপশনসহ ১৩+২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল রেয়ার ক্যামেরা এবং ৫ মেগাপিক্সেল ফন্ট ক্যামেরা।

হার্ডওয়্যার: এতে 4 জিবি র্যাম, 2.3 গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং পাওয়ার ভিআর জিই ৮৩২০ জিপিইউ রয়েছে। এটি একটি মিডিয়াটেক হেলিও জি৩০ (১২ন্যানোমিটার) চিপসেট দ্বারা চালিত।

স্টোরেজ: ডিভাইসটিতে ৬৪ বা ১২৮ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে।

নিরাপত্তা: এই ফোনটিতেও ব্যাক-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।

অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে এফএম রেডি, ডুয়েল সিম, ফেস আনলক, এবং স্প্ল্যাশ রেজিস্ট্যান্ট বডি ইত্যাদি।

মূল্য: ৳12,999 (3/32 GB), ৳13,999 4/64 GB

৫. Samsung Galaxy M02s

১২০০০ টাকার মধ্যে স্যামসাং মোবাইলডিসপ্লে: ফুল-ভিউ ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন সম্বলিত স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ফোনটির ডিসপ্লে সাইজ 6.5 ইঞ্চি (এইচডি+ স্ক্রিন)।

হার্ডওয়্যার: এতে ৪ জিবি র্যাম, ১.৮ গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং অ্যাড্রেনো ৫০৬ জিপিইউ রয়েছে। কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৫০ (১৪ এনএম) চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে।

ক্যামেরা: পিছনের ক্যামেরায় অটো-ফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, ডেপথ সেন্সর, ডেডিকেটেড ম্যাক্রো ক্যামেরা, ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধাসহ ট্রিপল (১৩+২+২ মেগাপিক্সেল) ক্যামেরা এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা 5 মেগাপিক্সেল।

ব্যাটারী: গ্যালাক্সি এম০২এস ফোনটিতে ৫০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারির ব্যবহার করা হয়েছে, যা ১৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার দিয়ে চার্জ করা যাবে।

স্টোরেজ: ডিভাইসটিতে ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে। এই ফোনে কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর নেই।

অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে এফএম রেডিও, ডুয়েল সিম, ফেস আনলক, অ্যান্ড্রয়েড ১০ ইত্যাদি।

অসুবিধা:

  • স্ক্রিন প্রোটেকশন নেই
  • ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর নেই

মূল্য: ৳12,999 টাকা 4/64 GB

৬. Realme C21

রিয়ালমি মোবাইল ফোনের দাম 2021ডিসপ্লে: রিয়েল্মি সি২১ ৬.৫ইঞ্চি এইচডি+ আইপিএস এলসিডি স্ক্রিনের সাথে আসে। এটিতে ফুল ভিউ ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন রয়েছে।

ক্যামেরা: পিছনের ক্যামেরাটি পিডিএএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, ডেপথ সেন্সর, ডেডিকেটেড ম্যাক্রো ক্যামেরা ইত্যাদি এবং ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং সহ ট্রিপল ১৩+২+২ মেগা পিক্সেল। সামনের ক্যামেরা ৫মেগাপিক্সেল।

ব্যাটারী: রিয়েলমি সি২১ ৫০০০ মিলিএম্পিয়ার বড় ব্যাটারি এবং ১০ ওয়াট দ্রুত চার্জিংয়ের সাথে আসে।

হার্ডওয়্যার: ৩ এবং ৪ জিবি র্যাম, 2.3 গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ রয়েছে। এটি মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ (১২ এনএম) চিপসেট দ্বারা চালিত।

স্টোরেজ: ডিভাইসটি ৩২ বা ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট সহ আসে।

নিরাপত্তা: এই ফোনে ব্যাক-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।

অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ডুয়েল সিম, ফেস আনলক ইত্যাদি।

অসুবিধা:

  • ডিসপ্লে প্রোটেকশন
  • জিপিউ ডিসেন্ট নয়।

মূল্য: ৳10,990 3/32 GB, ৳11,990 4/64 GB

৭. Oppo A15s

১২০০০ টাকার মধ্যে অপ্পো মোবাইলডিসপ্লে: অপ্পো এ১৫এস ৬.৫২ইঞ্চি এইচডি+ স্ক্রিনের ফোনটিতে ফুল-ভিউ ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন রয়েছে।

ক্যামেরা: পিছনের ট্রিপল (১৩+২+২ মেগা পিক্সেল) ক্যামেরাটি এলইডি ফ্ল্যাশ, পিডিএএফ, ডেপথ সেন্সর, ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা সম্বলিত। সামনের ক্যামেরা ৮ মেগা পিক্সেল।

ব্যাটারী: অপ্পো এ১৫এস ৪২৩০ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, সেই সাথে রয়েছে ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

হার্ডওয়্যার: এতে ৪জিবি র্যাম, 2.35 গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং পাওয়ারভিআর জিই ৮৩২০ জিপিইউ রয়েছে। ফোনটিতে মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫ (১২এনএম) চিপসেট দ্বারা চালিত।

স্টোরেজ: ৬৪ জিবি অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে।

নিরাপত্তা: এই অপ্পো ফোনটিতে ব্যাক-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ডুয়েল সিম, ফেস আনলক ইত্যাদি

অসুবিধা:

  • ডিসপ্লে প্রোটেকসন নেই
  • লো ব্যাটারি

মূল্য: ৳12,990 (4/64 GB)

৮. Realme C15 Qualcomm Edition

১২০০০ টাকার মধ্যে ভালো মোবাইলডিসপ্লে: রিয়েলমি সি১৫ কোয়ালকম ইডিসন ৬.৫ ইঞ্চি এইচডি+ ফোনটিতে আইপিএস এলসিডি স্ক্রিন ব্যবহার করা হয়েছে সেইসাথে গোরিলা গ্লাস দ্বারা সুরক্ষিত। এটি একটি ফুল-ভিউ মিনিমাল নচ ডিজাইন।

ক্যামেরা: পিছনের (১৩+৮+২+২) মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় পিডিএএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, ডেপথ সেন্সর, আল্ট্রাওয়েডএবং ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা রয়েছে। সামনের ক্যামেরা ৮ মেগা পিক্সেল।

ব্যাটারী: রিয়েলমি সি১৫ কোয়ালকম ইডিসন ৬০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের বড় ব্যাটারি এবং ১৮ওয়াট ফাস্ট চার্জিং নিতে পারে।

হার্ডওয়্যার: কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০ (১১ এনএম) চিপসেট দ্বারা চালিত ফোনটিতে ৩ এবং ৪জিবি র্যাম, ১.৮ গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং অ্যাড্রেনো ৬১০ জিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে।

স্টোরেজ: ডিভাইসটিতে ৩২, ৬৪ এবং ১২৮ জিবি অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে।

নিরাপত্তা: এই ফোনে নিরাপত্তার জন্য ব্যাক-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।

অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ডুয়েল সিম, ফেস আনলক ইত্যাদি।

অসুবিধা: ইউ এস বি টাইপ সি নেই

মূল্য: ৳12,990 (4/64 GB), ৳14,490 (4/128 GB)

৯. Xiaomi Poco C3

১২০০০ টাকার মধ্যে পোকো মোবাইলডিসপ্লে: শাওমি পোকো সি৩ ফোনটির স্ক্রিন সাইজ ৬.৫৩ ইঞ্চি যা এইচডি+ এবং ফুল-ভিউ ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন রয়েছে।

ক্যামেরা: পিছনের ট্রিপল ১৩+২+২ মেগা পিক্সেল ক্যামেরাটিতে পিডিএএফ, এলইডি ফ্ল্যাশ, এইচডিআর, ডেডিকেটেড ম্যাক্রো ক্যামেরা, ডেপথ সেন্সর ইত্যাদি বৈশিষ্ট্যের সাথে ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং অপশনও পাবেন। সামনের ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল।

হার্ডওয়্যার: মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ (১২এনএম) চিপসেট দ্বারা চালিত শাওমির এই ফোনে ২ এবং ৩ জিবি র্যাম, ২.৩ গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে।

ব্যাটারী: পোকো সি৩ ফোনটিতে ৫০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের বড় ব্যাটারি সাথে ফাস্ট চার্জিংয়ের সুবিধা রয়েছে।

স্টোরেজ: ডিভাইসটি ৩২ বা ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে।

সিকিউরিটি: এই ফোনে ব্যাক-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।

অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে এফএম রেডিও, ডুয়েল সিম, ফেস আনলক ইত্যাদি

অসুবিধা: নো ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর

১০. Realme Narzo 30A

12000 টাকার মধ্যে ভালো ফোন 2021ডিসপ্লে: জনপ্রিয় রিয়েলমি নারযো ৩০এ ফোনটিতে ফুল-ভিউ ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইনের সাথে এইচডি+আইপিএস এলসিডি স্ক্রিনের ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে।

ক্যামেরা: পিছনের ক্যামেরা ১৩+২ মেগা পিক্সেল যেখানে ২৬মি.মি প্রশস্ত লেন্স ব্যবহার করা হয়েছে, যা ফুল এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা দিবে। সামনের ক্যামেরা ৮ মেগা পিক্সেল।

ব্যাটারী: রিয়েলমি নারযো ৩০এ ফোনটিতে ৬০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের বড় ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে এবং সাথে পাচ্ছেন ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

হার্ডওয়্যার: ফোনটিতে ৩ ও ৪জিবি র র্যাম, ২.০ গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং মালি-জি ৫২ এমসি ২ জিপিইউ রয়েছে। রিয়েলমির এই ফোনটি মিডিয়াটেক হেলিও জি ৮৫ (১২ এনএম) চিপসেট দ্বারা চালিত।

স্টোরেজ: ডিভাইসটিতে ৩২ বা ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে।

সিকিউরিটি: এই ফোনে ব্যাক-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।

অন্যান্য সুবিধার মধ্যে রয়েছে এফএম রেডিও, ডুয়েল সিম, ফেস আনলক, ওটিজি ইত্যাদি।

অসুবিধা: নো ডিসপ্লে প্রোটেকশান

মূল্য: ৳12,990 (4/64 GB)

কম দামে ভালো ফোন নিয়ে শেষ কথা

আজকের আমরা বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে এমন ২০ টি কম দামে ভালো ফোন নিয়ে জেনেছি।  যেখানে নয় হাজার টাকা থেকে ১২ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে এমন ভালো কোয়ালিটির ফোন ছিলো।

এই ফোনগুলো লো বাজেট হিসেবে পারফোরমেন্স বেসড ফোন। এখন আপনি ফোনগুলোর স্পেসিফিকেশন, ফিচার, সুবিধা ও অসুবিধা জেনে নিয়েছেন। আশা করি, এবার নিজের চাহিদা, বাজেটের সাথে মিল রেখে নিজের পছন্দের ফোনটি নিয়ে নিতে পারেন।

তবে, আপনার বাজেট যদি বাড়াতে চান, তাহলে ১৩ হাজার কিংবা ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন গুলোও দেখে নিতে পারেন।

এবার বলুন, আপনি কোন ফোনটি কিনতে যাচ্চেন?


Imran Hossain

আমি ইমরান। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ভাল লাগে। শিখতে ও শিখাতে ভাল লাগে। - এই তো!

0 Comments

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!